Breaking

Saturday, December 12, 2020

1. মানবদেহের সর্বাপেক্ষা কঠিন অস্থির নাম কি ?
উঃ ম্যান্ডিবল (নীচের চোয়াল)
2. মানব দেহের বৃহত্তম পেশি কোনটি?
উঃ গ্লুটিয়াস ম্যাকসিমাস বা নিতম্বের পেশি।
3. মানবদেহের ক্ষুদ্রতম পেশির নাম কি?
উঃ  সিলিয়ারি বা স্টেপিডিয়াস
4. মানবদেহের ক্ষুদ্রতম অস্থির নাম কি?
উঃ স্টেপিস
5. মানবদেহের বৃহত্তম অন্তক্ষরা গ্রন্থি কোনটি?
উঃ থাইরয়েড
6. মানবদেহের বৃহত্তম পৌষ্টিক গ্রন্থির নাম কি?
উঃ যকৃৎ
৭. মানবদেহের বৃহত্তম লালাগ্রন্থি কোনটি?
উঃ প্যারােটিড গ্রন্থি
8. মানবদেহের দীর্ঘতম ধমনির নাম কি?
উঃ অ্যাবডােমিনাল অ্যাওর্টা
9. মানবদেহের সর্বাধিক পাতলা ত্বকের নাম কি? 
উঃ কনজাংটিভা।
10. মানবদেহের দীর্ঘতম কোশ কোনটি?
উঃ স্নায়ুকোশ
11. মানুষের দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা কত?
উঃ 98.4°F (36.9°C)
12. মানবদেহের ব্যস্ততম অংশ কোনটি? 
উঃ হৃৎপিণ্ড
13. মানবদেহের দীর্ঘতম পেশির নাম কি?
উঃ সারটোরিয়াস
14. মানবদেহের দীর্ঘতম অস্থির নাম কি ?
উঃ ফিমার
15. মানবদেহের সর্বাপেক্ষা শক্তিশালী অস্থি কোনটি?
উঃ ফিমার এবং টেমােরাল বােন
16. মানবদেহের সর্বাপেক্ষা হালকা অস্থি কোনটি ?
উঃ ন্যাসাে-টার বিন্যাস
17. মানবদেহের ক্ষুদ্রতম অন্তক্ষরা গ্রন্থি কোনটি?
উঃ পিনিয়াল বড়ি
18. মানবদেহের বৃহত্তম লসিকা গ্রন্থির নাম কি?
উঃ প্লিহা
19. মানবদেহের দীর্ঘতম শিরা কোনটি ?
উঃ নিম্ন মহাশিরা
20. মানবদেহের দীর্ঘতম স্নায়ুর নাম কি ?
উঃ সায়াটিক স্নায়ু।
21. মানুষের মস্তিষ্কের সর্ববৃহৎ অংশের নাম কি ?
উঃ গুরুমস্তিষ্ক বা সেরিব্রাম।
22. মানবদেহের ক্ষুদ্রতম কোশ কোনটি?
উঃ সেরিবেলামের গ্ৰ্যানিউল কোশ
23. মানবদেহের শক্ততম অংশের নাম কি?
উঃ দাঁতের এনামেল
24. মানবদেহের কোন অঙ্গ যার জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত আকারের কোনও পরিবর্তন হয় না?
উঃ চোখ।
25. মানব দেহের কোন অঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হলে পুনরায় সম্পূর্ণতা ফিরে পায় না বা আরোগ্য লাভ করে না?
উঃ দাঁত
26. মানবদেহের কোন অস্থি কোন অস্থির সঙ্গে যুক্ত নয়?
উঃ পলার হাইওয়েড অস্থি (Hyoid bone)
27. মানবদেহের কোন পেশীকে দর্জির পেশী বলে?
উঃ সারটোরিয়াস।
28. মানবদেহের পাকস্থলীর অ্যাসিডকে যদি হাতে ফেলা হয় কি হবে?
উঃ হাতের চামড়ায় ক্ষত বা ছিদ্র হবে।
29. মানব শরীরের কোন অঙ্গ যা আংশিক বা সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও পুনরায় সেই অঙ্গ তৈরি করতে পারে?
উঃ যকৃত।
30. মানব শরীরের মুখ থেকে পায়ুছিদ্র পর্যন্ত বিস্তৃত আন্ত্রিক নালীর দৈর্ঘ্য কত?
উঃ 30 ফুট।
31. মানব শরীরের চর্মের বর্ণের জন্য দায়ী রঞ্জক পদার্থ কোনটি?
উঃ মেলানিন।
32. মানব শরীরে যে পরিমাণ অক্সিজেন গৃহীত হয় ও শক্তি উৎপন্ন হয় তার কত শতাংশ মস্তিষ্ক গ্রহণ করে?
উঃ 20 শতাংশ।
33. মানব শরীরের বাম ফুসফুস, ডান ফুসফুসের তুলনায় আকারে ছোট কেন?
উঃ হৃদপিণ্ডকে জায়গা দেওয়ার জন্য।
34. মানুষের চুল কোন প্রোটিন দ্বারা গঠিত?
উঃ কেরাটিন।
35. মানবদেহের সবচেয়ে বড় অঙ্গের নাম কি?
উঃ চর্ম।
36. মানব শরীরের কোন কোষে নিউক্লিয়াস নেই?
উঃ লোহিত রক্তকণিকা।
37. মানুষের রক্তের লোহিত রক্তকণিকাতে নিউক্লিয়াস না থাকার কারণ কি?
উঃ যাতে বেশি পরিমাণে অক্সিজেন পরিবহন করতে পারে।
38. মানবদেহের কোন দুটি অংশ রক্ত থেকে অক্সিজেন সংগ্রহ করে না?
উঃ নখ ও চোখের কর্নিয়া।
39. বিশ্বের একমাত্র স্তন্যপায়ী প্রাণীর নাম বলো যার খাদ্য গলাধঃকরণের সময় শ্বাস প্রশ্বাস বন্ধ থাকে?
উঃ মানুষ।
40. মহাকাশচারীরা কাঁদতে পারেনা কেন?
উঃ অভিকর্ষ বল না থাকার ফলে চোখের জল নিচে প্রবাহিত হয় না।
41. একজন মানুষের মুখে কত সংখ্যক ব্যাকটেরিয়া থাকে?
উঃ পৃথিবীতে যত সংখ্যক মানুষ আছে।
42. একমাত্র কোন প্রাণী যাদের লজ্জায় মুখ রক্তিম হয় ?
উঃ মানুষ।
43. মধু সহজে হজম হয় কেন?
উঃ আমাদের হজমের পূর্বেই মৌমাছি সেই মধুকে হজম করে দেয় বলে।
44. মানুষের শরীরের দৈর্ঘ্য সকালে যা থাকে রাত্রে ঘুমাতে যাওয়ার সময় এক সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্য কম হয় কেন?
উঃ শরীরের তরুণাস্থি গুলির সংকোচনের ফলে।
45. কোন শ্রেণীর প্রাণীরা সবাই সাঁতার কাটতে পারে?
উঃ স্তন্যপায়ী শ্রেণীর প্রাণীরা।
46. শিশুর জন্মের পরে কটি বর্ণ দেখতে পায়?
উঃ দুটি, সাদা ও কালো।
47. একজন মানুষের সমস্ত স্নায়ুকে যোগ করলে দৈর্ঘ্য কত হবে?
উঃ 75 কিলোমিটার।
48. প্রতি সেকেন্ডে আমাদের মস্তিষ্কে কত সংখ্যক রাসায়নিক বিক্রিয়া হয়?
উঃ 1 লাখ।
49. মানবদেহে কয়টি ছিদ্র আছে?
উঃ প্রায় দুই লাখেরও বেশি।
50. মানবদেহে কয়টি হাড় আছে ?
উঃ 206 টি
51. মানুষের বুকে দুইপাশে কয়টি হাড় আছে?
উঃ 12 টি করে মোট 24 টি।
** মানবদেহে অভাবজনিত রোগ**
1. রক্তাল্পতা কিসের অভাবে হয়?
উঃ লৌহ
2. বেরিবেরি রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন বি-১
3. গয়টার রোগ কিসের অভাবে হয়?
উঃ আয়োডিনের অভাবে।
4. রাতকানা রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন এ যা রাসায়নিক নাম রেটিনল।
5. স্টেরিলিটি রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন E বা টোকোফেরল।
6. পেলেগ্রা রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ( নিয়াসিন)
7. স্কার্ভি রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন সি ( অ্যাসকরবিক অ্যাসিড)
8. অ্যারিবাফ্ল্যাবিনোসিস রোগ কিসের অভাবে হয় ?
উঃ ভিটামিন বি 2 ( রাইবোফ্লাভিন)
9. ডার্মাটোসিস রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন এ বা রেটিনল
10. রিকেট রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন D (ক্যালসিফেরল)
11. হাইপোক্যালেমিয়া রোগ কিসের অভাবে হয়?
উঃ পটাশিয়ামের অভাবে।
12. জেরপথ্যালমিয়া রোগ কোন ভিটামিনের অভাবে হয়?
উঃ ভিটামিন এ বা রেটিনল।
>> মানবদেহের বিভিন্ন রোগ যেমন-
i. ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগ 
ii.ভাইরাস ঘটিত রোগ 
iii.প্রোটোজোয়া ঘটিত রোগ ও 
iv. ছত্রাক ঘটিত রোগের বাহকের তালিকা নিচে দেয়া হল>>

মানবদেহের বিভিন্ন রোগ ও তার বাহক
রোগের কারণ রোগ/ রোগসমূহ
ব্যাকটেরিয়া ঘঠিত রোগ ডিপথেরিয়া, গনোরিয়া, মেনিনজাইটিস, হুপিং কাশি, যক্ষা, কলেরা, কুষ্ঠ, নিউমোনিয়া, টাইফয়েড, টিটেনাস
ভাইরাস ঘটিত রোগ চিকেন পক্স, স্মলপক্স, হাম, মাম্পস, এইডস, পীতজ্বর, প্লেগ, পোলিও, ইনফ্লুয়েঞ্জা, ডেঙ্গু জ্বর, রেবিস, সর্দি কাশি, জলবসন্ত, হারপিস
প্রোটোজোয়া ঘটিত রোগ ম্যালেরিয়া, অনিদ্রা, কালাজ্বর, লেসম্যানিয়াসিস, উদরাময়
ছত্রাক ঘটিত রোগ অ্যাথলিট ফুট, দাদ, মাদুরা ফুট, ধোবির ইচ
>
>
মানব শরীরের বিভিন্ন রোগ ও রোগাক্রান্ত অংশের তালিকা নিচে দেয়া হল>

মানব শরীরের বিভিন্ন রোগ ও রোগাক্রান্ত অংশ
রোগ রোগাক্রান্ত অংশ
অ্যালজাইমার স্নায়ুতন্ত্র
একজিমা চর্ম
গলগন্ড থাইরয়েড গ্রন্থি
জন্ডিস যকৃত
টাইফয়েড ক্ষুদ্রান্ত
ডিপথেরিয়া গলা
নেফ্রাইটিস বৃক্ক
প্লিউরিসি বক্ষ প্রাচীর
পোলিও হাত, পা,  স্নায়ুতন্ত্র
বাত অস্থিসন্ধি
মেনিনজাইটিস মস্তিষ্ক এবং সুষুম্নাকান্ড
রিকেট অস্থি
লিউকোমিয়া রক্ত
স্ট্রোক মস্তিষ্ক, হৃদপিণ্ড
আর্থারাইটিস অস্থিসন্ধি
কোলাইটিস বৃহদন্ত্র
ছানি, ট্রাকোমা চক্ষু
মৃগী স্নায়ুতন্ত্র
ডায়াবেটিস অগ্নাশয়/রক্ত
নিউমোনিয়া ফুসফুস
পায়োরিয়া দাঁত এবং মাড়ি
পারকিনসন, বেরিবেরি স্নায়ুতন্ত্র
কলেরা বৃহদন্ত্র
ম্যালেরিয়া প্লীহা
যক্ষা, অ্যাজমা ফুসফুস
রিউম্যাটিজম অস্থিসন্ধি
সাইনুসাইটিস মুখের হাড়
হিমোফিলিয়া রক্ত

No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)