Breaking

Tuesday, June 22, 2021

অষ্টম শ্রেণির পরিবেশ ও বিজ্ঞানের মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্কের উত্তর পর্ব ১ এবং ২ - Environment and Science class 8 model activity task part 1 and 2 solution

Part -1

1. পারদ এর ঘনত্ব 13.6 গ্রাম/ ঘন সেমি হলে 5 লিটার পারদের ভর কত কিলোগ্রাম হবে তা নির্ণয় করো?
উঃ এখানে দেওয়া আছে , 
ঘনত্ব = 13.6 গ্রাম/ ঘন সেমি
আয়তন = 5 লিটার = 5000 ঘন সেমি

আমরা জানি, ঘনত্ব = ভর / আয়তন  
 অর্থাৎ ,  ভর = ঘনত্ব × আয়তন
                   = 13.6 × 5000
                   = 68000 গ্রাম  [ 1000 গ্রাম = 1kg ]
                   = 68 কিলোগ্রাম
অতএব, 5 লিটার পারদের ভর 68 কিলোগ্রাম হবে।
2. প্রাণী কোষের একটি পরিচ্ছন্ন চিত্র অংকন করে তার বিভিন্ন অংশ চিহ্নিত করো।
উঃ প্রাণী কোষের চিত্র নিচে দেওয়া হল -
3. বিশেষ পরীক্ষা থেকে রাদারফোর্ড পরমাণু গঠন সম্বন্ধে কি কি সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলেন?
উঃ বিশেষ পরীক্ষা থেকে রাদারফোর্ড পরমাণুর গঠন সম্বন্ধে যে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছিলেন -
(i) প্রতিটি পরমাণুর কেন্দ্রে অতিক্ষুদ্র স্থানে পরমাণুর সমস্ত পজিটিভ আধান ও ভর কেন্দ্রীভূত থাকে। একে নিউক্লিয়াস বলে। অর্থাৎ, নিউক্লিয়াসটি পজিটিভ তড়িগ্রস্ত। 
(ii) পরমাণু নিরেট নয়,পরমাণুর অধিকাংশ স্থানই ফাঁকা। 
(iii) পরমাণুর নিউক্লিয়াসের মধ্যেই তার সমস্ত ধনাত্মক চার্জ সীমাবদ্ধ থাকে। 
(iv) নিউক্লিয়াসকে কেন্দ্র করে ইলেকট্রনগুলাে নানান বৃত্তাকার কক্ষপথে ঘুরছে। পরমাণু সম্বন্ধে রাদারফোর্ডের এই পরীক্ষালব্ধ ধারণাকেই ‘রাদারফোর্ডের পরমাণু মডেল’ বলা হয়।
4. উদ্ভিদ দেহের বিভিন্ন ধরনের প্লাস্টিডের ভূমিকা উল্লেখ করো।
উঃ গঠন, কাজ এবং রঞ্জক পদার্থের উপস্থিতি অনুসারে বিজ্ঞানী স্কিম্পার (Schimper, 1845 খ্রিস্টাব্দে) উদ্ভিদ দেহের প্লাসটিডদের প্রধান তিন ভাগে ভাগ করেছেন, যেমন—i) ক্রোমােপ্লাস্টিড , ii) ক্লোরােপ্লাস্টিডiii) লিউকোপ্লাস্টিড
i) ক্রোমােপ্লাস্টিড : উদ্ভিদ কোশের সবুজ রঞ্জক পদার্থ ছাড়া অন্যান্য রঞ্জক পদার্থযুক্ত প্লাসটিডদের ক্রোমােপ্লাস্টিড বলা হয়। এরা গােলাকার, দণ্ডকার, তারকাকার ইত্যাদি বিভিন্ন আকৃতির হয়। ফুলের পাপড়ি, পাকা ফলের খােসা, গাজরের মূলে এইপ্রকার প্লাসটিড থাকে। এইপ্রকার প্লাসটিড দ্বি-একক পর্দাবেষ্টিত থাকে। এদের ধাত্রে গ্রানা থাকে না। ধাত্রে ল্যামেলা, ক্যারােটিনয়েড দানা, স্নেহবস্তু ইত্যাদি থাকে।
ক্রোমােপ্লাস্টিডের কাজ হল উদ্ভিদের বিভিন্ন অংশের বর্ণ গঠন, ফুলের পরাগযোগ ও ফলের বিস্তারে সাহায্য করা।
ii) ক্লোরােপ্লাস্টিড : উদ্ভিদের বিভিন্ন প্লাসটিডের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযােগ্য প্লাসটিড হল ক্লোরােপ্লাস্টিড । এই প্লাস্টিড উদ্ভিদের সবুজ অংশে থাকে বিশেষ করে সবুজ পাতা, ফুলের বৃতি, গুলঞ্চ ও অর্কিডের মূলে, কচি কাণ্ডে এবং শৈবালে। ক্লোরোপ্লাসটিড প্রােপ্লাসটিড থেকে উৎপন্ন হয়। কোশের সাইটোপ্লাজমে এরা মুক্তভাবে ছড়িয়ে থাকে। এই প্লাসটিড সবুজ রঙের হয় এবং ক্লোরােপ্লাস্টিড উদ্ভিদের সালােকসংশ্লেষে মুখ্য ভূমিকা গঠন করে।
iii) লিউকোপ্লাস্টিড: বর্ণহীন প্লাসটিডদের লিউকোপ্লাস্টিড বলে। লিউকোপ্লাস্টিড উদ্ভিদের মূলের কোশে এবং যেসব অঙ্গের কোশে সূর্যের আলাে পৌছায় না সেইসব কোশে থাকে। এই রকম প্লাসটিড গােলাকার, ডিম্বাকার, দণ্ডকার হয়। এইপ্রকার প্লাসটিড দ্বি-একক পর্দা বেষ্টিত থাকে। ধাত্রে গ্রানা থাকে না। পরিবর্তে ধ্বংসপ্রাপ্ত ল্যামেলা থাকে। ধাত্রে শ্বেতসার দানা, প্রােটিন দানা, তৈল বিন্দু, রাইবােজোম ইত্যাদি থাকে। 
এই লিউকোপ্লাস্টিডের কাজ হল শর্করা, প্রােটিন ও ফ্যাট জাতীয় খাদ্য সঞ্চয়ে সহায়তা করা।

Part - 2

1. মাটির 6 ফুট উপর থেকে একটি খাতার পাতা ও একটি কয়েন একইসঙ্গে ছেড়ে দিলে কোন্‌টি আগে মাটিতে পড়বে?
উঃ মাটির 6 ফুট উপর থেকে একটি খাতার পাতা ও একটি কয়েন একইসঙ্গে ছেড়ে দিলে কয়েনটি খাতার পাতার অনেক আগেই মাটিতে পড়বে এর কারণ হলো খাতার পাতা হালকা থাকায় পতনের সময় বাতাসে কয়েনটির চেয়ে খাতার পাতাকে অনেক বেশি বায়ুর বাধা অতিক্রম করতে হচ্ছে।
      এই পরীক্ষাটি যদি বায়ুশূন্য কাচনলের মধ্যে করা হতো তাহলে দেখা যাবে খাতার পাতা ও কয়েন একইসঙ্গে মাটি স্পর্শ করবে।
এই পরীক্ষা দ্বারা প্রমাণিত হয় যে, বায়ুর বাধা না থাকলে একই উচ্চতা ও স্থির অবস্থা থেকে অবাধে পতনশীল সব বস্তুই সমান দ্রুততায় নীচে নামে।
2. প্লাস্টিকের চিরুনি দিয়ে শীতকালে শুকনো চুল আঁচড়ানোর পর তা নিস্তড়িৎ কাগজের টুকরোকে আকর্ষণ করে কেন তার ব্যাখ্যা দাও।
উঃ প্লাস্টিকের চিরুনি দিয়ে শীতকালে শুকনো চুল আঁচড়ানোর পর তা নিস্তড়িৎ কাগজের টুকরোকে আকর্ষণ করে কারণ চুলের সঙ্গে চিরুনির ঘর্ষণের ফলে চিরুনিটি তড়িদাহিত ( electrified ) হওয়ায় ফলে নিস্তড়িৎ কাগজের টুকরোকে আকর্ষণ করে।
ব্যাখ্যা: আমারে জানি যে, দুটি বস্তুকে ঘর্ষণ করলে তাদের তড়িৎ সৃষ্ট হয়। এখানে, চিরুনি দ্বারা শুকনো চুল আচড়ানাে ফলে চিরুনীতে স্থিরতড়িৎ উৎপন্ন হয়। এবার এই চিরুনি ছােট ছােট কাগজের টুকরার কাছে আনলে কাগজগুলােতে বিপরীতধর্মী আধানের সঞ্চার হয় বলে চিরুনীটি কাগজের টুকরাগুলােকে আকর্ষণ করে।
3. গ্যাসীয় অবস্থায় অণুদের গতীয় অবস্থা সম্বন্ধে তুমি কী কী বলতে পারো?
উঃ (i) গ্যাসের অণুগুলি সর্বদাই গতিশীল অবস্থায় থাকার ফলে দ্রুতগতিতে চলার সময় এরা পরস্পরের সঙ্গে এবং ধারক পাত্রের ভেতরের দেওয়ালে ধাক্কা খেয়ে অনবরত দিক পরিবর্তন করে। এজন্য অণুগুলির গতি বিশৃঙ্খল হয়।
(ii) যে কোনাে গ্যাসই অসংখ্য অণু দিয়ে গঠিত। গ্যাসের অণুগুলি নিরেট, গােলাকার ও স্থিতিস্থাপক হয়। একই গ্যাসের অণুগুলি আকারে ও ধর্মে একই রকম হয়। গ্যাসীয় অণুগুলির মধ্যে কোনাে আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বল কাজ করে না।
(iii) যে কোনাে দুটি ধাক্কার মাঝে অণুগুলি সমবেগে সরল রেখায় চলে।
(iv) গ্যাসের অণুগুলি স্থিতিস্থাপক হওয়ার ফলে ধাক্কা সত্ত্বেও অণুগুলির মােট ভরবেগ ও গতিশক্তির কোনাে পরিবর্তন হয় না।
৪. প্রাইমরডিয়াল ইউট্রিকল কী?
উঃ উদ্ভিদকোশে গহ্বরের আকার যখন ক্রমশ বাড়তে থাকে, তখন নিউক্লিয়াসসহ সাইটোপ্লাজম কোশপ্রাচীরের ভেতরের দিকে কোশের পরিধির দিকে সরে যায়। গহ্বরকে বেষ্টন করে সাইটোপ্লাজমের এরকমবিন্যাসকে প্রাইমরডিয়াল ইউট্রিকল বলে।
5. মানুষের লোহিত রক্তকণিকার আকার কী রকম এবং এই আকারের জন্য তার কী সুবিধা হয়?
উঃ লোহিত রক্তকণিকার আকার: মানুষের পরিণত লােহিত রক্তকণিকা গােলাকার; দু-পাশ চ্যাপটা, চাকতির মতাে হয়। পরিণত লোহিত রক্ত কণিকায় নিউক্লিয়াস না থাকায় লোহিত রক্তকণিকা দ্বি-অবতল বা দুপাশ চ্যাপ্টা হয়।

লোহিত রক্তকণিকার এই আকারের সুবিধা হল
লোহিত রক্তকণিকা দ্বি অবতল আকৃতির জন্য এদের তলীয় ক্ষেত্রফল অনেক বেশি হয় , ফলে বিভিন্ন ব্যাসের রক্তনালীর মধ্য দিয়ে যাতায়াতের জন্য আর বেশি পরিমাণ অক্সিজেন পরিবহন করতে পারে।
6. গলজি বস্তুর গঠন ও কাজ উল্লেখ করো।
উঃ গলগি বস্তুর গঠন: আদর্শ কোশের সাইটোপ্লাজমে নিউক্লিয়াসের নিকটে কতগুলি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র গহ্বর ও চ্যাপটা থলির মতাে অংশ নিয়ে গঠিত যে অঙ্গাণু কোশের ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে তাদের গলগি বস্তু বলে। উদ্ভিদ কোশের ক্ষেত্রে
গলগি বডির অংশগুলি কিছুটা বিক্ষিপ্তভাবে থাকে তাই এদের ডিকটিওজোম বলে।
গলগি বডির অংশগুলি হল—সিস্টারনি বা ল্যামেলি, মাইক্রোভেসিকল এবং ভ্যাকুওল
গলগি বস্তুর কাজ :  গলগি বস্তুর প্রধান কাজ গুলি হল- 
1. ক্ষরণ : গলগি বডি উৎসেচক, হরমােন, মিউকাস, নিউরােসিক্রিটরি পদার্থ ইত্যাদি ক্ষরণ করে। ক্ষরণকারী ভেসিকলগুলি এই কার্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট।
2. পরিবহণ : গলগি বডি কোশ-মধ্যস্থ বিভিন্ন পদার্থ, যেমন—উৎসেচক, যােগকলার ধাত্র, ক্ষরিত প্রােটিন ইত্যাদি পরিবহণে সহায়তা করে।
3. কার্বোহাইড্রেট সংশ্লেষ : সরল শর্করা থেকে কার্বোহাইড্রেট সংশ্লেষে গলগি বডির বিশেষ ভূমিকা আছে। উদ্ভিদ কোশে পেকটিন, পলিমিউকোপলিস্যাকারাইড সংশ্লেষ গলগি বডির সাহায্যে সম্পন্ন হয়।
4. সঞ্চয় : গলগি বডি বিভিন্ন প্রকার খাদ্যবস্তুর সঞয় ভাণ্ডার হিসেবে কাজ করে। গলগি ভ্যাকুলগুলি এই কাজের সঙ্গে জড়িত।
5. কোশপ্রাচীর গঠন: কোশ বিভাজনের অ্যানাফেজ দশায় ভেসিকল গুলি বিষুব অঞ্চলে জড়াে হয়ে এবং পরস্পর যুক্ত হয়ে সেলপ্লেট গঠন করে এবং তার দু-পাশে পেকটিক পদার্থ ও অন্যান্য পদার্থ জমা করে কোশপ্রাচীর গঠন করে।
6. লাইসােজোম গঠন: গলগি সিস্টারনি প্রাথমিক লাইসােজোম সৃষ্টি করে।
7. অ্যাক্রোজোম গঠন : গলগি বডি শুক্রাণুর
অ্যাক্রোজোম গঠন করে।

No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)