Breaking

Thursday, September 30, 2021

ভারতে সুফিবাদ ও সুফি আন্দোলনের গুরুত্ব

সুফিবাদ কি?

ভারতে মুসলমানদের আগমনের পর খ্রিস্টীয় নবম-দশম শতাব্দীতে ইসলাম ধর্মের এক সংস্কারবাদী উদার মতবাদের প্রসার ঘটে। এটি ইতিহাসে সুফিবাদ বা সুফি আন্দোলন বলে পরিচিত। অনেকের মতে, এই মতবাদের প্রচারকরা আরবি শব্দ সুফ’ অর্থাৎ পশম বা উলের এক বিশেষ পােশাক পরতেন বলে এঁরা সুফি নামে পরিচিতি লাভ করেন।

সুফিবাদের মূল কথা কি ছিল?

সুফিবাদের মূল কথা হল– (i) একেশ্বরবাদে বিশ্বাস, (ii) পবিত্র জীবনযাপন, (iii) আল্লা বা ঈশ্বরের কাছে আত্মসমর্পণ।


ভারতে সুফি আন্দোলনের গুরুত্ব আলোচনা করো।

সমাজ, ধর্ম, রাজনীতি, সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে সুফিবাদের প্রভাব বা গুরুত্ব রয়েছে। সুফিবাদের প্রভাব বা গুরুত্ব বিশ্লেষণ করে বলা যায়: - 
(১) সাহিত্য-সংস্কৃতি পূর্ণতা প্রাপ্ত হয়। আমির খসরু, ওমর খৈয়াম, রুমি, হাফেজ, প্রমুখ লেখকদের লেখনীতে সুফিবাদের প্রভাব পড়েছিল। 
(২) ভারতীয় শাসকদের মধ্যে (যথা—শেরশাহ, আকবর, হােসেনশাহ প্রমুখ) ধর্ম সমন্বয়ের আদর্শ স্থাপনে সুফিবাদের প্রভাব রয়েছে। 
(৩) ভক্তিবাদের বিকাশে সুফিবাদের অবদান রয়েছে। 
(৪) হিন্দু-মুসলিম ঐক্য স্থাপনে সুফিবাদের প্রভাব রয়েছে। 
(৫) মুসলিমদের মধ্যে ধর্মসহিষ্ণুতার বােধ বৃদ্ধি হয়।

চিরাগ ই দিল্লি বা দিল্লির আলো কাকে বলা হয়?

উঃ নাসিরউদ্দিন চিরাগকে।


No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)