Breaking

Monday, September 27, 2021

পদার্থ সংক্ষিপ্ত ও অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর

পদার্থের অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর

1. অ্যাসিডের স্বাদ কী রকম ?
উত্তরঃ অ্যাসিডের স্বাদ অম্ল।
2. এক ঘনসেমি জলের ভর কত ?
উত্তরঃ এক ঘনসেমি জলের ভর এক গ্রাম ।
3. কোনাে বস্তুর একক আয়তনের ভরকে কী বলে ?
উত্তরঃ কোনাে বস্তুর একক আয়তনের ভরকে ঘনত্ব বলে।
4. দ্বিপরমাণুক অণু কাকে বলে ?
উত্তরঃ যে অণু দুটি পরমাণু দ্বারা গঠিত, তাকে দ্বিপরমাণুক অণু বলে।
5. স্থির চাপে গ্যাসের উষ্ণতা বাড়ালে আয়তন কমে না বাড়ে ?
উত্তরঃ স্থির চাপে গ্যাসের উষ্ণতা বাড়ালে আয়তন বাড়ে।
6. লােহার চুম্বকে পরিণত হওয়া কী জাতীয় পরিবর্তন ?
উত্তরঃ লােহার চুম্বকে পরিণত হওয়া ভৌত পরিবর্তন।
7. গন্ধক কোন দ্রাবকে দ্রবীভূত হয় ?
উত্তরঃ গন্ধক কার্বন ডাই-সালফাইডে দ্রবীভূত হয়।
8. দুটি পদার্থের নাম করাে যাদের উপর তাপ প্রয়ােগ করলে তরলে পরিণত না হয়ে সরাসরি বাষ্পে পরিণত হয় ?
উত্তরঃ কর্পূর, নিশাদল।
9. পরমাণুবাদ কে আবিষ্কার করেন ?
উত্তরঃ পরমাণুবাদ আবিষ্কার করেন জন ডালটন।
10. কোন অবস্থায় পদার্থের নির্দিষ্ট আকার থাকে না ?
উত্তরঃ তরল ও গ্যাসীয় অবস্থায়।
11. অক্সিজেনের অণু কয়টি পরমাণু দ্বারা গঠিত?
উঃ 2 টি।
12. বিশুদ্ধ তামার রং কেমন?
উঃ লালচে
13. গন্ধক কিসে দ্রাব্য ?
উঃ কার্বন ডাই সালফাইডে
14. লােহা কার উপর ভাসে?
উঃ পারদের উপর।
15. লােহায় মরিচা পড়া কোন ধরনের পরিবর্তন?
উঃ রাসায়নিক পরিবর্তন।
16. পরমাণুবাদ কোন বিজ্ঞানী প্রচার করেন?
উঃ বিজ্ঞানী জন ডালটন।
17. বারুদ কোন পদার্থ?
উঃ বারূদ মিশ্র পদার্থ।
18. কত ডিগ্রি সেলসিয়াস উষ্ণতায় জলের ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি?
উঃ 4°c উষ্ণতায় জলের ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি।
19. গ্যাসীয় পদার্থের অণুগুলাের মধ্যে কোন বল সবচেয়ে কম?
উঃ আকর্ষণ বল।
20. সাধারণ অবস্থায় পারদ কোন পদার্থ?
উঃ তরল পদার্থ।
21. ত্ৰিপরমাণুক মৌলের নাম কি?
উত্তরঃ ওজোন গ্যাসের পারমাণবিকতা 3, (O3)।
22. এমন একটি পদার্থের নাম করাে যা তিনটি অবস্থায় থাকে ?
উত্তরঃ জল তিনটি অবস্থায় থাকে।
23. একটি কঠিনে তাপ প্রয়ােগ করলে কী হবে?
উত্তরঃ কঠিনে তাপ প্রয়ােগ করলে কঠিনের আয়তন বাড়ে, দৈর্ঘ্য বাড়ে ও উষ্ণতা বাড়ে।
24. দুটি মৌলিক অণু ও দুটি যৌগিক অণুর নাম করাে।
উত্তরঃ মৌলিক অণু হল অক্সিজেন অণু (O2), নাইট্রোজেন অণু (N2)
যৌগিক অণু হল জল (H2O), এবং কার্বন ডাই-অক্সাইড (CO2)
25. জলে তাপ প্রয়ােগ করলে জল বাষ্পে পরিণত হয় এটি কী জাতীয় পরিবর্তন ?
উত্তরঃ এটি ভৌত পরিবর্তন।
26. পাথুরে চুনে জল ঢাললে কী জাতীয় পরিবর্তন হবে ?
উত্তরঃ পাথুরে চুনে জল ঢাললে রাসায়নিক পরিবর্তন হবে।
27. কেবল গন্ধ দ্বারা সনাক্ত করা যায় এমন তিনটি পদার্থের নাম করাে।
উত্তরঃ সরষের তেল, কেরােসিন, অ্যালকোহল ।
28. থার্মোস্ট্যাট কোন নীতির উপর কার্য করে ?
উত্তরঃ উষ্ণতা বৃদ্ধিতে দ্বিধাতব পাতের বেঁকে যাওয়া ধর্মকে কাজে লাগিয়ে থার্মোস্ট্যাট কার্য করে।
29. খাদ্যলবণ ও চিনি কোন ভৌত ধর্মের সাহায্যে সনাক্ত করা যায় ?
উত্তরঃ স্বাদের সাহায্যে চিনি ও সাধারণ লবণকে সনাক্ত করা যায়।
চিনির স্বাদ–মিষ্টি, সাধারণ লবণের স্বাদ—নােনতা।
30. রাসায়নিক পরিবর্তনে কী পদার্থের ভরের পরিবর্তন হয় ?
উত্তরঃ রাসায়নিক পরিবর্তনে পদার্থের ভরের পরিবর্তন হয় না।
31. রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অণু ও পরমাণুর মধ্যে কোনটি অংশগ্রহণ করে ?
উত্তরঃ পরমাণু রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে।
32. তামা ও গন্ধককে কীভাবে চিনবে ?
উত্তরঃ তামা ও গন্ধককে বর্ণ দ্বারা সনাক্ত করা যায়।
তামার বর্ণ—লালচে, গন্ধকের বর্ণ-হলুদ।
33. হাইড্রোজেন, হাইড্রোজেন সালফাইড ও ক্লোরিন গ্যাসকে কোন ভৌত ধর্মের সাহায্যে সনাক্ত করা যায় ?
উত্তরঃ হাইড্রোজেন, হাইড্রোজেন সালফাইড, ক্লোরিন গ্যাসকে গন্ধ দ্বারা সনাক্ত করা যায়। হাইড্রোজেন গন্ধহীন, হাইড্রোজেন সালফাইডের গন্ধ—পচা ডিমের গন্ধ, ক্লোরিন গ্যাসের গন্ধ—ব্লিচিং পাউডারের গন্ধ।
34. ধাতুকে পিটিয়ে পাতে তৈরি করা যায়, অধাতুকে পিটলে গুঁড়াে হয়ে যায়। কার কাঠিন্য বেশি ?
উত্তরঃ অধাতুর কাঠিন্য বেশি।

পদার্থের সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর

1. ভৌত ধর্ম কাকে বলে? কোন কোন ভৌত ধর্মের সাহায্যে বিভিন্ন পদার্থকে সনাক্ত করা যায় ?
উত্তরঃ পদার্থের যে ধর্ম পদার্থের বাহ্যিক গুণ ও অবস্থার পরিচয় বহন করে, তাদের ভৌত ধর্ম বলে। যেমন—গন্ধ, বর্ণ, ঘনত্ব, আয়তন, কাঠিন্য, ওজন।
2. থার্মোস্ট্যাট ব্যবহারের সুবিধা কী ?
উত্তরঃ থার্মোস্ট্যাট হল পিতল ও ইনভারের একটি দ্বিধাতব পাত। যে যন্ত্রে ইহা ব্যবহার করা হয় সেই যন্ত্রের উষ্ণতা খুব বেশি হলে থার্মোস্ট্যাট বেঁকে গিয়ে বৈদ্যুতিক বর্তনী ছিন্ন করে এবং বিদ্যুৎপ্রবাহ বন্ধ করে। আবার উষ্ণতা কমলে থার্মোস্ট্যাট সােজা হয়ে বর্তনী সম্পূর্ণ করে আবার তড়িৎপ্রবাহ চলে।
3. ম্যাগনেসিয়াম ফিতার দহন কী ধরনের পরিবর্তন ?
উত্তরঃ ম্যাগনেসিয়াম ধাতুর ফিতাকে পােড়ানাে হল। তীব্র সাদা আলাে উৎপন্ন হল। ম্যাগনেসিয়াম বায়ুর অক্সিজেনের উপস্থিতিতে পুড়ে ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড উৎপন্ন করে। ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইডের ধর্ম ও গঠন ম্যাগনেসিয়াম থেকে পৃথক। ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড থেকে ম্যাগনেসিয়ামকে ফিরে পাওয়া যায় না। এই পরিবর্তন স্থায়ী। এটি রাসায়নিক পরিবর্তন।
4. একটি উদাহরণ দাও যেখানে ভৌত ও রাসায়নিক পরিবর্তন একসঙ্গে ঘটে।
উত্তরঃ মােমবাতি যখন জ্বালানাে হয় তখন মােমের উপাদান কার্বন ও হাইড্রোজেন বায়ুর অক্সিজেনের সঙ্গে বিক্রিয়া করে কার্বন ডাই-অক্সাইড ও জল উৎপন্ন হয়। কার্বন ডাই-অক্সাইড ও জলের আণবিক গঠন মােমবাতির গঠন ও ধর্ম থেকে আলাদা। এই পরিবর্তন স্থায়ী। ইহা রাসায়নিক পরিবর্তন।

মােমবাতির জ্বলনের সময় যে তাপ উৎপন্ন হয় সেই তাপ কিছুটা মােমকে গলিয়ে তরলে পরিণত করে এবং ঠাণ্ডায় ওই তরল জমে কঠিন মােমে পরিণত হয়। এই পরিবর্তন ভৌত পরিবর্তন।
5. একটি করে কঠিন, তরল ও গ্যাসীয় পদার্থের নাম করাে যাদের গন্ধ দিয়ে সনাক্ত করা যায়।
উত্তরঃ ন্যাপথ্যালিন, কেরােসিন ও ক্লোরিন গ্যাসকে গন্ধ দ্বারা সনাক্ত করা যায়। ন্যাপথ্যালিনের বিশেষ গন্ধ আছে। কেরােসিনের নিজস্ব গন্ধ আছে। ক্লোরিনের ব্লিচিং পাউডারের গন্ধ আছে।
6. দুধ থেকে দই করা হল এটি কী ধরনের পরিবর্তন ?
উত্তরঃ দুধ থেকে দই করলে দুধের চর্বি জাতীয় পদার্থের রাসায়নিক পরিবর্তন ঘটে ও ল্যাকটিক অ্যাসিড উৎপন্ন হয়। দুধ ও দই ভিন্ন ধর্মের পদার্থ। দইকে পুনরায় দুধে পরিণত করা যায় না। এই পরিবর্তন স্থায়ী। ইহা রাসায়নিক পরিবর্তন।
7. চাল থেকে ভাত রান্না করা হল এটি কী ধরনের পরিবর্তন ?
উত্তরঃ চালে জল মিশিয়ে ভাত রান্না করলে, ভাতের অবস্থা ও ধর্ম চালের থেকে আলাদা, ভাত থেকে চালকে ফিরে পাওয়া যায় না। এই পরিবর্তন স্থায়ী। ইহা রাসায়নিক পরিবর্তন।
8. ছুরি দিয়ে কাচ কাটা যায় না কিন্তু হীরক দিয়ে কাচ কাটা যায় কেন ?
উত্তরঃ কাচের কাঠিন্য ছুরির কাঠিন্যের থেকে বেশি তাই ছুরি দিয়ে কাচ কাটা যায় না। কিন্তু হীরকের কাঠিন্য সবচেয়ে বেশি। এইজন্য হীরক দিয়ে কাচ কাটা যায়।

আরও দেখুন - 1. পদার্থ ও শক্তি

No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)