Breaking

Wednesday, January 12, 2022

পৃথিবীর পরিক্রমণ বা বার্ষিক গতি ও ঋতু পরিবর্তন বিষয়ে ছোট প্রশ্ন ও সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর

বার্ষিক গতি ও ঋতু পরিবর্তন বিষয়ে ছোট প্রশ্ন

1. পৃথিবী কীভাবে ঘােরে ?
উত্তরঃ পৃথিবী আপন মেরুদণ্ডের উপর লাট্টুর মতাে পশ্চিম দিক থেকে পূর্ব দিকে ঘােরে।
2. উত্তরায়ণ কাকে বলে ?
উত্তরঃ 22 শে ডিসেম্বরের পর হতে 21 শে জুন পর্যন্ত সূর্যের উত্তরদিকে কর্কটসংক্রান্তির আপাত গতিকে সূর্যের উত্তরায়ণ বলে।
3. মকরক্রান্তি রেখা ও কর্কটক্রান্তি রেখা কাকে বলে ?
উত্তরঃ নিরক্ষরেখা থেকে 23½° উত্তরে ও 23½° দক্ষিণে যে দুটি কাল্পনিক রেখা অবস্থান করছে তাদের যথাক্রমে কর্কটক্রান্তি রেখা ও মকক্রান্তি রেখা বলে।
4. কোন সময়কে হেমন্তকাল বলে ?
উত্তরঃ 15ই অক্টোবর থেকে 15ই ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়কে হেমন্তকাল বলে।
5. রবিমাৰ্গ কী ?
উত্তরঃ কর্কটক্রান্তি রেখা হতে মকরক্রান্তি রেখা পর্যন্ত সূর্যের আপাত বার্ষিক গতিপথকে রবিমার্গ বলে।
6. ঋতুচক্র কী ?
উত্তরঃ পৃথিবীর সব দেশে গ্রীষ্ম, শরৎ, শীত ও বসন্ত চক্রাকারে পরিবর্তন করে, একে ঋতুচক্র বলে।
7. পৃথিবীর সূর্যকে প্রদক্ষিণ করার গতিকে কী বলে ?
উত্তরঃ বার্ষিক গতি।
8. যে পথে পৃথিবী সূর্যকে পরিক্রমণ করে তাকে কী বলে ?
উত্তরঃ কক্ষপথ ।
9. কত দিনে সৌর বছর হয় ?
উত্তরঃ 365 দিন 5 ঘন্টা 48 মিনিট 46 সেকেন্ডে ।
10. পৃথিবীর পরিক্রমণ পথের আকৃতি কেমন ?
উত্তরঃ উপবৃত্তাকার।
11. সূর্য থেকে পৃথিবীর গড় দূরত্ব কত ?
উত্তরঃ প্রায় 15 কোটি কিলােমিটার।
12. উত্তর গােলার্ধে দীর্ঘতম দিন কোনটি ?
উত্তরঃ 21 শে জুন।
13. দক্ষিণ গােলার্ধে দীর্ঘতম দিন কোনটি ?
উত্তরঃ 22 শে ডিসেম্বর।
14. কোন কোন তারিখে পৃথিবীর সর্বত্র দিন-রাত্রি সমান ?
উত্তরঃ 21 শে মার্চ ও 23 শে সেপ্টেম্বর।
15. ঋতু কটি ও কী কী ?
উত্তরঃ গ্রীষ্ম, শরৎ, শীত ও বসন্ত—এই চারটি ঋতু।
16. সৌরদিন কাকে বলে ?
উত্তরঃ পৃথিবীর আপন মেরুরেখায় নিজেকে একবার ঘুরতে সময় লাগে 24 ঘণ্টা। এই 24 ঘণ্টা বা এক দিনকে সৌরদিন বলে।
17. ফেরেলের সূত্র অনুসারে দক্ষিণ গােলার্ধের বায়ু কোনদিকে বাঁকে ?
উত্তরঃ ফেরেলের সূত্র অনুসারে দক্ষিণ গােলার্ধের বায়ু বামদিকে বাঁকে।
18. কোন দিনটিকে কর্কটসংক্রান্তি বলে ?
উত্তরঃ 21 শে জুন তারিখকে কর্কটসংক্রান্তি বলে।
19. কর্কটসংক্রান্তি ও মকরসংক্রান্তি কাকে বলে ?
উত্তরঃ 21 শে জুনকে কর্কটসংক্রান্তি ও 22 শে ডিসেম্বরকে মকরসংক্রান্তি বলে।
20. বিষুব কাকে বলে ?
উত্তরঃ যে তারিখে পৃথিবীর সর্বত্র দিবাভাগ ও রাত্রিভাগ সমান হয়।
21. মহাবিষুব কাকে বলে ?
উত্তরঃ 21 শে মার্চ পৃথিবীর সর্বত্র দিন-রাত্রি সমান বলে, ওই দিনটিকে মহাবিষুব বলে ।
22. কোন তারিখকে জলবিষুব বলে ?
উত্তরঃ 23 শে সেপ্টেম্বরকে জলবিষুব বলে।
23. আহ্নিক গতির ফলে কী হয় ?
উত্তরঃ আহ্নিক গতির ফলে দিন-রাত্রি হয়।
24. বার্ষিক গতির ফলে কী হয় ?
উত্তরঃ বার্ষিক গতির ফলে ঋতু পরিবর্তন হয়।
25. কোন তারিখে দক্ষিণ গােলার্ধে দিবাভাগ সবচেয়ে বড়াে এবং রাত্রি সবচেয়ে ছােটো হয় ? 
উত্তরঃ 22 শে ডিসেম্বর।
26. কর্কটক্রান্তি রেখা কাকে বলে ?
উত্তরঃ 23½° উত্তর অক্ষ রেখাটিকে কর্কটক্রান্তি রেখা বলে ।
27. মকরক্রান্তি রেখা কাকে বলে ?
উত্তরঃ 23½ (ডিগ্রি) দক্ষিণ অক্ষরেখাকে মকরক্রান্তি রেখা বলে।
28. ঋতু পরিবর্তন কী ?
উত্তরঃ উষ্ণতার পরিবর্তনকে বলে ঋতু পরিবর্তন।
29. কোন দিনকে পৃথিবীর অপসূর অবস্থা বলে ?
উত্তরঃ 4 ঠা জুলাই সূর্য পৃথিবী থেকে সবচেয়ে দূরে (অর্থাৎ 15 কোটি 20 লক্ষ কিলােমিটার) অবস্থান করে। এই অবস্থাই পৃথিবীর অপসূর অবস্থা ।
30. কোন দিনকে পৃথিবীর অনুসূর অবস্থা বলে ?
উত্তরঃ 3রা জানুয়ারি সূর্য থাকে পৃথিবীর সবচেয়ে নিকটে (অর্থাৎ 14 কোটি 70 লক্ষ কিলােমিটার) অবস্থান করে। একে অনুসূর অবস্থা বলে।
31. আবর্তন কী ?
উত্তরঃ পৃথিবীর নিজ মেরুরেখার ওপর ঘােরাকে বলে আবর্তন।
32. পৃথিবী কোন দিক থেকে কোন দিকে আবর্তন করে ?
উত্তরঃ পৃথিবী পশ্চিম থেকে পূর্বে আবর্তন করে।
33. পৃথিবী স্থির না গতিশীল ? পৃথিবী গতিশীল –এই তথ্য কে প্রমাণ করেন ?
উত্তরঃ পৃথিবী গতিশীল। পৃথিবী গতিশীল এই তথ্য প্রমাণ করেন মহাবিজ্ঞানী গ্যালিলিও।
34. পৃথিবী কীভাবে ঘুরছে ?
উত্তরঃ পৃথিবী নিজ মেরুদণ্ডের উপর আবর্তন করার সঙ্গে সঙ্গে নির্দিষ্ট গতিতে ও সময়ে এক নির্দিষ্ট পথে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করছে।
35. সৌর বছর কীভাবে গণনা করা হয় ?
উত্তরঃ পৃথিবী সূর্যকে 365¼ দিনে একবার পরিক্রমণ করে। এই সময় হল সৌর বছর 36. পরিক্রমণ সময়কে বার্ষিক গতি বলে কেন ?
উত্তরঃ পরিক্রমণ সময়কে ভিত্তি করে বছরের হিসেব রাখা হয় বলে এই গতিকে বার্ষিক গতি বলে।
37. পৃথিবীর পরিক্রমণ পথের কোথায় সূর্য অবস্থান করছে ?
উত্তরঃ পরিক্রমণ পথের নাভিতে বা কেন্দ্রে সূর্য অবস্থান করছে।
38. ঋতু পরিবর্তন কী জন্য ঘটে ?
উত্তরঃ সূর্যের পরিক্রমণ গতির জন্য ঋতু পরিবর্তন ঘটে।
39. উত্তর গােলার্ধে 21 শে জুন তারিখে দিন-রাত্রির অবস্থা কেমন হয় ?
উত্তরঃ 21 শে জুন তারিখে উত্তর গােলার্ধে দীর্ঘতম দিন ও ক্ষুদ্রতম রাত্রি ।
আরো পড়ুন- 21শে জুন তারিখে পৃথিবীর কক্ষপথে কিভাবে অবস্থান করে
40. পরিক্রমণকালে পৃথিবীর মেরুরেখা কক্ষতলের সঙ্গে কত ডিগ্রি কোণ করে ঝুঁকে থাকে ?
উত্তরঃ 66½° কোণ করে।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর

1. দক্ষিণায়ন কাকে বলে ?
উত্তরঃ 21 শে জুন থেকে 22 শে ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাস সূর্যের আপাত দক্ষিণমুখী গতিকে সূর্যের দক্ষিণায়ন বলে।
2. আবর্তন কাকে বলে? এর ফলে কী হয় ?
উত্তরঃ পৃথিবী সূর্যের সামনে নিজ অক্ষ বা মেরুদণ্ডের উপর অবিরাম গতিতে পশ্চিম হতে পূর্ব দিকে ঘুরছে। এই গতিকে আহ্নিক গতি বা আবর্তন বলে। এই আবর্তনের ফলে পৃথিবীপৃষ্ঠে দিন ও রাত্রি হচ্ছে। একটি পূর্ণ আবর্তনের সময়কে সৌরদিন বলে।
3.  পরিক্রমণ করার সময় পৃথিবীর মেরুরেখা কক্ষতলের সঙ্গে কী অবস্থায় থাকে ? এর ফলে কী হয় ?
উত্তরঃ পরিক্রমণ করার সময় পৃথিবীর মেরুরেখা কক্ষতলের সঙ্গে 66½° (ডিগ্রি) কোণ করে হেলানাে অবস্থায় থাকে। ফলে নিরক্ষরেখার সঙ্গে কক্ষতলের কোণ 23½° এবং পৃথিবীর মেরুরেখা বিভিন্ন অবস্থানে পরস্পর সমান্তরাল অবস্থায় থাকে।
4. পৃথিবীর কৌণিক অবস্থানের গুরুত্ব কী ?
উত্তরঃ কক্ষপথে পৃথিবীর কৌণিক অবস্থানের ফলে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সময়ে দিন-রাত্রির প্রকারভেদ হয় এবং ঋতুচক্রের বিবর্তন সম্ভব হয়। বছরের বিভিন্ন সময়ে তাপমাত্রা বিভিন্ন রকমের হয়। শীতকালে তাপমাত্রা কম থাকে, গ্রীষ্মকালে হয় বেশি। আবার শরৎ ও বসন্তকালে তাপমাত্রা মধ্যম। পৃথিবীর অক্ষের কৌণিক অবস্থান 66½° হওয়ার জন্যই তাপমাত্রার এইরূপ প্রকারভেদ হয়।
5. অপসূর কাকে বলে ?
উত্তরঃ পৃথিবীর বার্ষিক গতির সময় সূর্য ও পৃথিবীর মধ্যে দূরত্ব সর্বদা সমান থাকে না, কারণ সূর্য পৃথিবীর কক্ষপথে একটি নাভিতে অবস্থান করে। এই রূপে 4ঠা জুলাই সূর্য থেকে পৃথিবীর দূরত্ব সব থেকে বেশি হয়, একে পৃথিবীর অপসূর অবস্থান বলে।
6. অনুসূর কাকে বলে ?
উত্তরঃ পৃথিবী পরিক্রমণ করতে করতে সূর্য এবং পৃথিবীর দূরত্ব যখন সবচেয়ে কম হয়, তখন পৃথিবীর অনুসূর অবস্থান বলে। 3রা জানুয়ারি পৃথিবী থেকে সূর্যের দূরত্ব অনেক কম (14 কোটি 70 লক্ষ কিমি) হয়। একে অনুসূর অবস্থান বলে।
7. পৃথিবীর কোন অঞ্চলকে নিশীথ সূর্যের দেশ বলে ?
উত্তরঃ নরওয়ের উত্তরে অবস্থিত হ্যামারফেস্ট ও তার নিকটবর্তী অঞ্চলকে নিশীথ সূর্যের দেশ বলে। এখানে স্থানীয় সময় অনুসারে মধ্যরাত্রিতে সূর্যের আলাে আবছা দেখা যায়।
8. সূর্যের আপাত দৈনিক গতি কাকে বলে ?
উত্তরঃ পৃথিবী পশ্চিম দিক থেকে পূর্ব দিকে আবর্তন করে কিন্তু আপাতদৃষ্টিতে আমরা সূর্যকে পূর্ব দিক থেকে পশ্চিম দিকে ঘুরতে দেখি। এই গতিকে সূর্যের আপাত-দৈনিক গতি বলে।
9. সৌরবৎসর কাকে বলে ?
উত্তরঃ পৃথিবী সূর্যকে একটি নির্দিষ্ট কক্ষপথে পরিক্রমণ করে। সূর্যকে একবার পরিক্রমণ করতে পৃথিবীর সময় লাগে 365 দিন 5 ঘণ্টা 48 মিনিট 46 সেকেন্ড। এই সময়কেই সৌরবৎসর বলে।
10. কোন দিনকে কর্কটসংক্রান্তি বলে ? কেন ?
উত্তরঃ সূর্যের উত্তরায়ণের সময় 21 শে জুন তারিখে সূর্য পৃথিবীর উত্তর গােলার্ধের সবচেয়ে কাছে এসে পড়ে, তাই 21 শে জুন তারিখটিতে পৃথিবীর উত্তর গােলার্ধে দিনের পরিমাণ সবথেকে বেশি এবং রাত্রি সবথেকে কম হয় । অনুরূপে দক্ষিণ গােলার্ধ ঠিক বিপরীত অবস্থার সৃষ্টি করে। ওই দিনটিকে অর্থাৎ 21 শে জুন তারিখটিকে কর্কটসংক্রান্তি বলে।
12. সুমেরু প্রভা ও কুমেরু প্রভা কী ?
উত্তরঃ সুমেরু প্রভা ও কুমেরু প্রভা হল মেরু অঞ্চলে শীতকালে আলাের ঝালরের মতাে দৃশ্যমান আলােকপ্রভা। একে মেরুপ্রভা বলে। উত্তর মেরু অঞ্চলে মেরুপ্রভাকে সুমেরু প্রভা এবং দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে একে কুমেরু প্রভা বলা হয়।

3. বার্ষিক গতির ফলে কিভাবে গ্রীষ্মকালের সৃষ্টি হয়?
4. 21শে জুন তারিখে পৃথিবীর কক্ষপথে কিভাবে অবস্থান করে?

No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)