Breaking

Sunday, June 12, 2022

বায়ু দূষণ প্রতিরোধের উপায় গুলি আলোচনা করো।
উঃ বায়ুদূষণ একেবারে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না। তবে একে বিভিন্ন উপায়ে প্রতিরোধ করা যেতে পারে
বায়ুদূষণ নিম্নলিখিতভাবে প্রতিরোধ বা নিয়ন্ত্রণ করা যায়—
(i) বায়ুতে কার্বন ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ কমানোর জন্য বনাঞ্চল বাড়াতে হবে, বেশি গাছ লাগাতে হবে। গাছ বায়ু থেকে CO₂ শোষণ করে খাদ্য তৈরি করবে এবং অক্সিজেন ত্যাগ করবে। বনসম্পদ ধ্বংস না করে জ্বালানির ব্যবহার কমাতে হবে। গাছ বায়ুদূষণকারী অনেক গ্যাসকে শোষণ করে। গাছের পাতা তার দু'পাশে অনেক সূক্ষ্ম কণা ও ধূলিকণা প্রচুর পরিমাণে জমিয়ে রেখে বায়ুকে দূষণ থেকে রক্ষা করে। 
(ii) কারখানায় কম সালফারযুক্ত জ্বালানি ব্যবহার করতে হবে। জ্বালানি হিসেবে কয়লার ব্যবহার কমিয়ে প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার বেশি করতে হবে। 
(iii) কলকারখানায় উৎপাদন পদ্ধতি পরিবর্তন বা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে বা নতুন পদ্ধতি চালু করতে হবে। 
(iv) যানবাহনে পুরোনো ইঞ্জিন বাতিল বা সংস্কার করতে হবে যাতে বায়ুদূষণ কমে। 
(v) সাইক্লোটন সেপারেটার দিয়ে ধোঁয়া জাতীয় বায়ুদূষক থেকে কণাগুলোকে বিচ্ছিন্ন করতে হবে। 
(vi) চুল্লি থেকে কণা জাতীয় পদার্থ যাতে সরাসরি বাতাসে আসতে না পারে তার জন্য বিভিন্ন ধরনের ফিল্টার ব্যবহার করতে হবে। 
(vii) সিমেন্ট শিল্পে, কাগজ শিল্পে, তেল শোধনাগারে ইলেকট্রোস্ট্যাটিক প্রেসিপিটার যন্ত্র ব্যবহার, সাইক্লোন সেপারেটর ব্যবহার করতে হবে। 
(viii) কলকারখানার বর্জ্য পদার্থগুলো যাতে বায়ুর সঙ্গে মিশতে না পারে তার ব্যবস্থা করতে হবে। 
(ix) কলকারখানাগুলোকে লোকালয় থেকে দূরে রাখতে হবে। 
(x) কৃষিকার্যে কীটনাশকের ব্যবহার কমাতে হবে। 
(xi) দূষণ সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে হবে। 
(xii) উপযুক্ত আইন প্রণয়ন করতে হবে।

আরো পড়ুন-

No comments:

Post a Comment

কোন প্রশ্নের উত্তর ভুল থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবে ( কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সময়ের সাথে সাথে উত্তর পরিবর্তন হয়)